Saturday , September 23 2017
শিরোনাম
হোম / রাজনীতি / প্রধানমন্ত্রীর উখিয়া সফরে খুশি ফখরুল

প্রধানমন্ত্রীর উখিয়া সফরে খুশি ফখরুল

ঢাকার ডাক ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারের উখিয়ায় গিয়ে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোয় খুশি হয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
তিনি বলেছেন, জাতিসংঘসহ সারা বিশ্ব যখন মিয়ানমারের গণহত্যার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে, ‘তখন দেখলাম প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের দেখতে গেছেন। তাদের ত্রাণ দিয়েছেন। এতে আমরা এটুকু খুশি যে এত দিনে তাদের বোধোদয় হয়েছে।’

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয়তাবাদী যুবদলের আয়োজনে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দশম কারামুক্তি দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তবে জাতীয় সংসদে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে চাপ দেয়ার দাবি করা হলেও সেখানে যে গণহত্যা চলছে তার নিন্দা না করায় হতাশা প্রকাশ করেন ফখরুল।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘গতকাল সংসদে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে চাপ দেয়ার দাবি করা হয়েছে। কিন্তু মিয়ানমারের সেনাবাহিনী সেখানে যে গণহত্যা চালাচ্ছে, তারা পরিকল্পিতভাবে একটা জাতিকে নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে তার নিন্দা জানানো হয়নি। আমরা আজকের অনুষ্ঠান থেকে এর নিন্দা জানাচ্ছি।’

সবকিছুতে সরকার বিএনপির ষড়যন্ত্র দেখছে এমন দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, ’৯২ সালে এমন অবস্থা (রোহিঙ্গা শরণার্থী) সৃষ্টি হওয়ায় তখন বেগম খালেদা জিয়া সীমান্তে সেনা মোতায়েন করেছিলেন। ১৯৭৮ সালে চুক্তি করে জিয়াউর রহমান মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাধ্য করেছিলেন।’

বিএনপি রোহিঙ্গাদের নিয়ে রাজনীতি করতে চায় সরকারি দলের নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘আমরা নয় আওয়ামী লীগই রাজনীতি করতে চায়। আপনারা মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও বিজিবি যৌথ অভিযান চালানোর কথা বলছেন। কাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবেন?

মিয়ানমারের গণহত্যার নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে রোহিঙ্গাদের ওপর নির‌্যাতন বন্ধের দাবি জানান ফখরুল।

সরকারের উদ্দেশে ফখরুল বলেন, ‘নির্বাচনের দিন আসছে, আর আপনারা নানা কথা বলছেন। আপনারা আবার ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন করতে চান। সেই নির্বাচন হবে না। আমরা যে সহায়ক সরকারের প্রস্তাব দিতে যাচ্ছি সেই আলোকে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিন। অন্যথায় জনগণ আপনাদের ক্ষমা করবে না।’

এক-এগারোর সেনা-সমর্থিত সরকারের সময় খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের কারাবরণের কথা উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, পরিকল্পিতভাবে জাতীয়তাবাদী আদর্শকে ধ্বংস করতে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। বিএনপিকে নানা অপপ্রচারের জবাব দিতে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরবের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য দেন বিএনপির নেতা আব্দুল্লাহ আল নোমান, বরকত উল্লাহ বুলু, রুহুল কবির রিজভী, শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, আব্দুস সালাম আজাদ, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মোরতাজুল করিম বাদরু প্রমুখ।

যুব সংগঠনটির সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।

Check Also

বিএনপির সঙ্গে রাজনৈতিক সমঝোতা হবে না: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকার ডাক রিপোর্ট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপির সঙ্গে কোন রাজনৈতিক সমঝোতার কথা নাকচ করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *