Saturday , September 23 2017
শিরোনাম
হোম / সারা বাংলা / সিরাজগঞ্জে ৭টি ইউনিটে ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত

সিরাজগঞ্জে ৭টি ইউনিটে ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক : ভোটার সংশোধনী না থাকা, সাংগঠনিক সমন্বয়হীনতা, আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের বিদ্যমান দ্বন্দ্ব ও সমঝোতা না হওয়া এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যদের মনগড়া কমিটি গঠন নিয়ে দ্বন্দ্বে সিরাজগঞ্জে ছাত্রলীগের সাতটি ইউনিট কমিটি স্থগিত করা হয়েছে।

শনিবার দিনব্যাপী সম্মেলন শেষ হলেও সংঘাতের আশঙ্কা থাকায় কমিটি ঘোষণা করা হয়নি। সন্ধ্যায় সাতটি ইউনিট ছাত্রলীগের কমিটি গঠন নিয়ে সিরাজগঞ্জ সার্কিট হাউসের সভা কক্ষে মতবিনিময় হয়। দীর্ঘ তিন ঘণ্টায় সমাধান না হওয়ায় রাত ১০টায় সভা কক্ষ থেকে বের হয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম. জাকির হোসাইন।

এর আগে শনিবার সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ উপজেলা ও হাজী কোরপ আলী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। একই দিনে সিরাজগঞ্জ পৌর, সিরাজগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজ, শহীদ এম মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজ, সিরাজগঞ্জ সরকারি ম্যাটস শাখা ছাত্রলীগের সম্মেলনও অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না। অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম. জাকির হোসাইন। অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

কামারখন্দ উপজেলা ছাত্রলীগসহ সাতটি ইউনিট ছাত্রলীগের কমিটি গঠন বিষয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকিরুল ইসলাম লিমন জানান, স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না ঢাকায় বসে মনগড়া কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় সাতটি ইউনিটের কমিটি গঠন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। কারণ তিনি প্রভাব খাটিয়ে সাতটি ইউনিটের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তার মনোনীত ছাত্রকে বানাতে চান। যা কখনোই সম্ভব নয়। এ জন্য কমিটি গঠন প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সঙ্গে কথা বলে কমিটি গঠনকল্পে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

তবে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুজিত সরকার জানান, ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সাতটি ইউনিটের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও রাজনৈতিক সমঝোতা না হওয়ায় কমিটি গঠন সম্ভব হয়নি। এ সংকট কাম্য নয়। রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে তরুণ নেতৃত্ব বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। সংকট উত্তরণে সিনিয়র নেতাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে সমাধান করা উচিত। তাহলে ইউনিট ছাত্রলীগ আরো শক্তিশালী হবে বলে তিনি মনে করেন।

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. একরামুল হক জানান, উভয়পক্ষে সমঝোতা না হওয়ায় সাতটি ইউনিট ছাত্রলীগের কমিটি গঠন সম্ভব হয়নি। শীঘ্রই সমঝোতার ভিত্তিতেই কমিটি গঠন করা হবে।

Check Also

ময়মনসিংহে পরকীয়ার বলি আজিজ

অনলাইন ডেস্ক : ময়মনসিংহে ফুলপুর থানা পুলিশের উদ্ধার করা অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশের পরিচয় মিলেছে। আজিজুর রহমান আজিজ তারাকান্দাউপজেলার পাইন্নাবর গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *