Thursday , October 19 2017
হোম / শিক্ষা / শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনুমোদনে আসছে বড় পরিবর্তন

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনুমোদনে আসছে বড় পরিবর্তন

অনলাইন ডেস্ক :  শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপনে আসছে বড় পরিবর্তন। এখন থেকে অনুমোদন নিয়ে প্রতিষ্ঠানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে হবে। আগের মতো আর ১৩টি শর্ত পূরণ করে আবেদন জমা নেয়া হবে না বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনুমোদন আইনে ১৩টি শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে। যা প্রতিষ্ঠান অনুমোদনের আগেই পূরণ করতে বলা হয়েছে। তার মধ্যে জমি ক্রয়, ভবন তৈরি, অবকাঠামো নির্ণয়, পর্যাপ্ত শিক্ষার্থী ভর্তিসহ ১৩টি শর্ত রয়েছে।

অথচ এতোসব করার পরও শর্ত অনুযায়ী প্রাপ্যতা না থাকায় যুগের পর যুগ কেটে গেলেও সেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়া হচ্ছে না। উদ্যোক্তারা বিপুল পরিমাণে অর্থ ব্যয় করে স্কুল-কলেজ স্থাপন করছেন। প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন পেতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মহলে ঘুরেও কোনো লাভ হচ্ছে না। অনুমোদন তো পাচ্ছেই না, নানাভাবে তারা হয়রানি হচ্ছেন।

জানা গেছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনুমোদন নীতি-১৯৯৭ অনুযায়ী নতুন স্কুল, মাধ্যমিক জুনিয়র স্কুল, মাধ্যমিক স্কুল ও কলেজ অনুমোদন ছিল সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ডের নিয়ন্ত্রণে। জনসংখ্যা, প্রাপ্যতাসহ ১৩ শর্ত পূরণের মাধ্যমে নতুন প্রতিষ্ঠান অনুমোদন দেয়ার কথা থাকলেও নানা অনিয়মের মাধ্যমে যত্রতত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনুমোদন দেয়ার প্রমাণ পায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বিষয়টি দুদক পর্যন্ত গড়ায়।

এরপর ২০১৫ সালে একটি আদেশ জারির মাধ্যমে শিক্ষা বোর্ডের সে ক্ষমতা শিথিল করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের অধীনে সে ক্ষমতা নেয়া হয়। নির্দেশে বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রাণালয়ের অনুমতি সাপেক্ষে নতুন স্কুল-কলেজ স্থাপন, পাঠদানের অনুমতি ও স্বীকৃতি দেয়া হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানায়, সংশ্লিষ্ট অনুমোদন ছাড়াই পাঠদানসহ শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করা হয়। অথচ যুগের পর যুগ কেটে গেলেও আইনের মারপ্যাঁচে সেসব প্রতিষ্ঠানকে কোনো ধরনের অনুমোদন দেয়া হচ্ছে না। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এমন সহস্রাধিক আবেদন উপর-নিচে চালাচালি হলেও লাল ফিতায় তা আটকে থাকছে।

বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব ছালমা জাহান বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনুমোদনে নানা জটিলতা রয়েছে। এ কারণে দেশের সহস্রাধিক প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা কার্যক্রম চালু থাকলেও তাদের অনুমোদন দেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি বলেন, এসব বিষয় আমলে নিয়ে এ আইন পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে মঙ্গলবার শিক্ষামন্ত্রীর নেতৃত্বে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে একটি সভা ডাকা হয়েছে। সভায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনুমোদন সংক্রান্ত বিষয়ে পরিবর্তন আনা হবে।

তিনি বলেন, এ পরিবর্তনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান অনুমোদনের পরে জমি নির্ধারণ, ভবন নির্মাণ ও অবকাঠামো তৈরি করতে হবে। জনসংখ্যার ভিত্তিতে প্রাপ্যতা নির্ণয় করা হবে।

এছাড়াও যারা অনুমোদন ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে প্রতিষ্ঠান চালাচ্ছে তাদের বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

Check Also

‘ক’ ইউনিটে পাসের হার ২৩.৩৭, ‘চ’ ইউনিটে ২.৭৫

অনলাইন ডেস্ক : ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ও চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *