Saturday , November 25 2017
শিরোনাম
হোম / জাতীয় / সরকার ছোট মনের পরিচয় দিয়েছে: খালেদা

সরকার ছোট মনের পরিচয় দিয়েছে: খালেদা

অনলাইন ডেস্ক : সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে আসতে নেতাকর্মীদের সরকার বাধা দিয়েছে অভিযোগ করে দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, এর দ্বারা সরকার ছোট মনের পরিচয় দিয়েছে। কৃত্রিম যানজট সৃষ্টি করে তাঁকে সমাবেশে আসতে বাধা দেয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন খালেদা।

রবিবার বিকালে বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন। ৭ নভেম্বর ‘বিপ্লব ও সংহতি’ দিবস উপলক্ষে এই সমাবেশের আয়োজন করে বিএনপি। প্রায় দুই বছর পর খালেদা জিয়া কোনো জনসভায় ভাষণ দেন।

বিএনপির অভিযোগ, তাদের জনসভাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই ঢাকামুখী গণপরিবহন বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। তবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, বাস কেন মালিকরা বন্ধ রেখেছেন এটা তাদের জানা নেই।

খালেদা জিয়া বলেন, ‘এই সমাবেশের অনুমতি দিলেও এখানে যেন জনগণ না আসতে পারে এর সব ব্যবস্থা করছে। বাস বন্ধ করছে। এমনকি আমি যেন এখানে না আসতে পারি এর জন্য আমার বাসার সামনে (গুলশান) থেকে খালি বাস রেখে দিয়ে জ্যাম সৃষ্টি করেছে। চুরি করে যে দল ক্ষমতায় থাকে তারা তোঢাকাটা জনগণকে ভয় পাবেই। এই সরকার সবচেয়ে বেশি ভয় পায় জনগণকে।’

সমাবেশে খালেদা জিয়া বলেন, ‘বহুদলীয় গণতন্ত্রে মত-পথের ভিন্ন থাকবেই। তবে সবাইকে এক হয়ে দেশের জন্য কাজ করতে হবে।’ ক্ষমতায় গেলে আওয়ামী লীগের ওপর কোনো প্রতিশোধ নেবেন না বলেও জানান সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সরকারের কথায় চলছে অভিযোগ করে খালেদা বলেন, ‘আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছ নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য কিছু সুপারিশ দিয়েছি। সেখানে নির্বাচনে সেনা মোতায়েন, ইবিএম ব্যবহার না করাসহ বিভিন্ন প্রস্তাব আাছে। কিন্তু নির্বাচন কমিশন বলছে সেনা মোতায়েন হবে না। তারা ইভিএম ব্যবহার করতে চাইছে। কেন তারা বলছে সেনা মোতায়েন হবে না। তাহলে আমরা বুঝবো তারা সরকারের কথায় চলছে।’

খালেদা বলেন, ‘জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। এ সরকার তাদের লোকদের খুনের আসামি হলেও ছেড়ে দিচ্ছে। আর আমাদের নির্দোষ নেতাকর্মীদের জেলে ভরছে।’ তিনি বলেন, ‘এই সরকার বলেছে ঘরে ঘরে চাকরি দেবে। কিন্তু আমরা দেখছি ঘরে ঘরে বেকার তৈরি হচ্ছে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘আজ প্রধান বিচারপতিকে জোর করে অসুস্থ বানিয়ে দেশের বাইরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। বাইরে পাঠিয়ে তার ওপর চাপ সৃষ্টি করে তাকে পদত্যাগে বাধ্য করা হয়েছে। তিনি দেশে ফিরতে চেয়েছেন কিন্তু তাকে আসতে দেয়া হয়নি।’

খালেদা বলেন, ‘আজ জনগণের ঐক্য হলো বড় ঐক্য। আজ যারা জনগণের ভালো চায় তাদের জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ জনগণের ভালো চায় না। তাদের আমলে চালের দাম বেড়েছে। দেশের টাকা সুইস ব্যাংকে পাঠিয়েছে। আমরা আগে কখনো এম ঘটনা শুনিনি বাংলাদেশিদের টাকা সুইস ব্যাংকে আছে। ২০১৫ সালে পাঁচ হাজার কোটি টাকা সেখানে পাচার হয়েছে। গত ১০ বছর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে। আর এই ১০ বছরে  সাড়ে চার লাখ কোটি টাকার বেশি বিদেশে পাচার হয়েছে। এটা আমাদের হিসাবে নয় আমেরিকার একটি প্রতিষ্ঠানের গবেষণার হিসাব।’

বিএনপি নেত্রী বলেন, ‘আজ প্রতি পদে পদে দুর্নীতি। তারা উন্নয়ানের কথা বলে, উন্নয়নের নামে তারা লুটপাট করছে। ডিজিটাল বাংলাদেশে নামে বিশাল দুর্নীতি হচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা পাচার হয়েছে ৮০০ কোটি টাকা। এগুলোর বিচার হয় না। এগুলো তো জনগণের টাকা। আওয়ামী লীগের কাছে এ দেশের মানুষ বাঁচলো কি মরলো এর কোনো চিন্তা নেই।’

এ সময় খালেদা জিয়া জানান, বিএনপি ক্ষমতায় এলে এক বছরের বেশি যারা বেকার থাকবে তাদের বেকার ভাতা দেয়া হবে।

Check Also

বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে কেরানীগঞ্জে জমি ইজারা পেল যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক :  ভ্রাম্যমাণ ৩০০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে কেরানীগঞ্জের পানগাঁওয়ে অভ্যন্তরীণ কন্টেইনার টার্মিনালের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *